1. admin@muhurto.tv : muhurtotv :
  2. info@netpeon.org : Ali Siddiki : Ali Siddiki
  3. smbabu.mcj@outlook.com : S M Babu : S M Babu
শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন

২০ বছর পর গৃহবধূর পেট থেকে বের করা হলো কাঁচি

রেজাউল করিম লিটন, সংবাদ মুহূর্ত, চুয়াডাঙ্গা।
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৪৭ প্রদর্শিত সময়ঃ

২০ বছর ধরে পেটে কাঁচি বয়ে বেড়ানো চুয়াডাঙ্গার সেই গৃহবধূ বাচেনা খাতুনের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার দুপুরে তার অস্ত্রোপচারের তার পেট থেকে ওই কাঁচিটি বের করা হয়। বেলা ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত আড়াই ঘণ্টা ধরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের অস্ত্রোপচার চলে।

এর আগে গত ৫ জানুয়ারি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন বাচেনা খাতুন। ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকায় এতদিন চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে ছিলেন তিনি। এরপর সোমবার তার শরীরিক পরীক্ষা নিরীক্ষার পর অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

অস্ত্রোপচারের পর চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. ওয়ালিউর রহমান নয়ন বলেন, রোগীর পেট থেকে সেই কাঁচিটি বের করা হয়েছে। বর্তমানে রোগী সুস্থ আছে।

এদিকে, ডাক্তারের ভুলের কারণে বাচেনা খাতুনকে ক্ষতিপূরণ দেয়াসহ অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা।

পিত্তথলিতে পাথর অস্ত্রোপচারের জন্য মেহেরপুরের গাংনীর রাজা ক্লিনিকে ভর্তি হয়েছিল চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার চিৎলা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের বাচেনা খাতুন। ২০০২ সালের ২৫ মার্চ ওই ক্লিনিকে তার অস্ত্রোপচার করে ক্লিনিক মালিক ডা. পারভিয়াস হোসেন রাজা। সে সময় পেটের মধ্যে একটি ৯ ইঞ্চি সাইজের কাঁচি রেখেই সেলাই করে ফেলেন রোগীর পেট। এরপর থেকেই বিভিন্ন সময় পেটে ব্যথা অনুভব করছিলেন তিনি।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর
কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত মুহূর্ত কমিউনিকেশনস লিমিটেড।
error: কপি/রাইট ক্লিক এর অনুমতি নাই !!!