1. admin@muhurto.tv : muhurtotv :
  2. smbabu.mcj@outlook.com : S M Babu : S M Babu
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১০ অপরাহ্ন
সর্বশেষ মুহূর্তঃ
রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী লীগের এি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত মহানগরীর পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন রাসিক মেয়র ও আরএমপি কমিশনার খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় রাজশাহীতে দোয়া মাহফিল রাসিক মেয়র ও আরএমপি কমিশনারের প্রতিমা বিসর্জন পরিদর্শন রাজশাহীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ দুর্গাপূজায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন আরএমপির সিআরটি সদস্যদের সাতদিনের মেন্টরশিপ কোর্স শুরু ইউএনও’র হস্তক্ষেপে শেষযাত্রায় অজ্ঞাত মরদেহের পরিচয় মিলেছে মাদ্রিদে বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভ্রাতৃ সমাবেশ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুদানের চেক বিতরণ করলেন বসিক মেয়র

কয়রায় সাংসদ বাবুর উপর কাদা ছোঁড়ার ঘটনায় তদন্ত শুরু

স্বপ্না সরদার, সংবাদ মুহূর্ত, খুলনা।
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ মঙ্গলবার, ১৫ জুন, ২০২১
  • ৬৬ প্রদর্শিত সময়ঃ

খুলনায় খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবুকে কাদা ছুঁড়ে মারার ঘটনায় আওয়ামী লীগের কেউ জরিত কি না তা তদন্ত করতে কমিটি গঠন করেছে দলটি। সোমবার পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে দলটি। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট এমএম মজিবুর রহমানকে আহ্বায়ক করে গঠিত তদন্ত কমিটিতে সদস্য করা হয়েছে, জেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু, সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম খালেদীন রশিদী সুকর্ণ, দপ্তর সম্পাদক এমএ রিয়াজ কচি ও সদস্য অসিত বরণ বিশ্বাস। সূত্রটি জানিয়েছেন, কয়রা উপজেলা আ’লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের রাজনীতি টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে ক্ষুব্ধ উপকূলবাসীকে উসকে দিয়েছে কি না, মূলতঃ সে বিষয়টিই তদন্ত করবেন তারা।

আওয়ামী লীগের কয়রা শাখার সভাপতি জিএম মহসিন রেজা’র সাথে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এসএম শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে স্থানীয় আ’লীগের একটি বড় অংশের দীর্ঘদিনের বিরোধ চলছে। এর সাথে যোগ হন জেলা আওয়ামী লীগের একজন নেতা।

আবার মহারাজপুর ইউনিয়নে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন মোঃ আব্দুল্লাহ্ আল মাহমুদ। এ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা আ’লীগের সভাপতির ভাই জিএম আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলু মনোনয়ন পাননি। কয়রা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি জিএম মহসিন রেজার নেতৃত্বাধীন একটি অংশ স্থানীয় সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবুর সহচার্যে থাকলেও উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি অংশের দূরত্ব স্থানীয়দের কাছে দৃশ্যমান। ফলে কয়রা উপজেলা আ’লীগের দীর্ঘদিনের অভ্যন্তরীণ কোন্দল এ তদন্ত কমিটির সামনে ফুটে উঠবে বলে প্রত্যাশা স্থানীয় নেতৃবৃন্দের।

তবে এসব বিষয় কোনও মন্তব্য করতে রাজি নন তারা। খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবুকে লক্ষ্য করে কাদা ছুড়ে মারার ঘটনায় কেন্দ্রীয় আ’লীগের গঠিত পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি এখনই কোনও মন্তব্য করতে চাইছেন না। তবে তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা আ’লীগের দপ্তর সম্পাদক এমএ রিয়াজ কচি বলেছেন, কেন্দ্র থেকে পাঁচ সদস্যের কমিটি করে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১৫ জুন) সকল পত্রিকা অফিসে এর কপি পৌঁছে দেয়া হয়। তখন সবাই বিষয়টি জানতে পারবেন।

কয়রা উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের দশহালিয়া এলাকায় কপোতাক্ষ নদের ভেঙে যাওয়া বাঁধ মেরামত স্বেচ্ছাশ্রমে কাজের স্থলে গত ১ জুন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে একটি ট্রলার নিয়ে যান খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু। এসময় বাঁধে কাজ করা উত্তেজিত জনতা সাংসদকে দেখে বিক্ষুব্ধ হয়ে তার বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে শুরু করেন। একপর্যায়ে বিক্ষুব্ধ জনতা কাদা ছুড়ে মারতে থাকেন সাংসদকে বহন করা ট্রলারের দিকে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ট্রলার নিয়ে ফিরে যান সাংসদ বাবু।

এসময় মাইকে উত্তেজিত মানুষকে শান্ত হওয়ার আহ্বান জানান একজন ঘোষক। কিন্তু প্রায় আধাঘণ্টা ধরে উত্তেজনা বিরাজ করে বাঁধ এলাকায়। বাবুকে ট্রলার নিয়ে ফিরে যেতে দেখে হাততালি দিয়ে ওঠেন অনেকেই। তবে কিছুক্ষণ পর আবার ফিরে আসেন সাংসদ আক্তারুজ্জামান বাবু। পরে এলাকাবাসীর সঙ্গে বাঁধ নির্মাণ কাজেও অংশ নেন তিনি।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর
কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত মুহূর্ত কমিউনিকেশনস লিমিটেড।
error: কপি/রাইট ক্লিক এর অনুমতি নাই !!!