1. admin@muhurto.tv : muhurtotv :
  2. smbabu.mcj@outlook.com : S M Babu : S M Babu
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ মুহূর্তঃ
খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় রাজশাহীতে দোয়া মাহফিল রাসিক মেয়র ও আরএমপি কমিশনারের প্রতিমা বিসর্জন পরিদর্শন রাজশাহীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ দুর্গাপূজায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন আরএমপির সিআরটি সদস্যদের সাতদিনের মেন্টরশিপ কোর্স শুরু ইউএনও’র হস্তক্ষেপে শেষযাত্রায় অজ্ঞাত মরদেহের পরিচয় মিলেছে মাদ্রিদে বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভ্রাতৃ সমাবেশ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুদানের চেক বিতরণ করলেন বসিক মেয়র আসছে জুনের আগে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী দুর্গাপূজা উপলক্ষে আরএমপি কমিশনারের মতবিনিময় সভা

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দিতে চায় মিয়ানমারের ছায়া সরকার

বিশ্বময় মুহূর্ত ডেস্ক।
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ শনিবার, ৫ জুন, ২০২১
  • ৬৭ প্রদর্শিত সময়ঃ

সামরিক জান্তা হটানোর চলমান লড়াইয়ে নামতে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মিয়ানমারের ছায়া সরকার (ঐক্য সরকার)। সেই সাথে ক্ষমতায় গেলে মিয়ানমারের গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা ও তাদের নাগরিক করে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে তারা। বাংলাদেশ থেকে রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসনের পক্ষে নিজেদের অবস্থানের কথাও জানিয়েছে ছায়া সরকার।

গত বৃহস্পতিবার ছায়া সরকারের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গাদের নিয়ে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়েছে। ওই বিবৃতিতে রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতির কথা রয়েছে।

মিয়ানমারে রক্তপাতহীন সেনা অভ্যুত্থান হয় গত এক ফেব্রুয়ারি গত বছরের নভেম্বরের সাধারণ নির্বাচনে অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) অভাবনীয় বিজয় প্রত্যাখ্যান করে জান্তারা ক্ষমতা দখল করে নেয়। সেই সাথে আটক করা হয় সু চিসহ এনএলডির কয়েকজন শীর্ষ নেতাকে।

এর পর থেকে জান্তাবিরোধী তুমুল বিক্ষোভে দেশটিতে ৮৪০ জনের বেশি প্রাণ হারিয়েছেন। নিজ দেশের মানুষের ওপর দমনপীড়ন চালানোয় জান্তাপ্রধান মিন অং হ্লাইংয়ের ওপর দেশি-বিদেশি চাপ বেড়েছে। রাষ্ট্রক্ষমতা থেকে জান্তাদের সরাতে এনএলডির ক্ষমতাচ্যুত আইনপ্রণেতারা গঠন করেছেন জাতীয় ঐক্যের সরকার।

বিবৃতিতে ছায়া সরকার বলেছে, ‘আমরা রোহিঙ্গাদের জান্তাবিরোধী চলমান লড়াইয়ে অংশ নিতে আহ্বান জানাচ্ছি।’

বিবৃতিতে ছায়া সরকার রোহিঙ্গা শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। এর আগে সু চির এনএলডি সরকার এ শব্দের ব্যবহার এড়িয়ে যেত। রোহিঙ্গাদের ‘রাখাইনে বসবাসকারী মুসলিম’ বলে সম্বোধন করা হতো।

১৯৮২ সালে প্রণীত নাগরিকত্ব আইনের আওতায় এত দিন বৈষম্যের শিকার হয়ে এসেছে মিয়ানমারের রোহিঙ্গারা। ক্ষমতায় এলে বিতর্কিত এ আইন বাতিল করে মিয়ানমারে জন্ম নেওয়া কিংবা দেশটির নাগরিক হওয়ার যোগ্য সবাইকে নাগরিকত্ব দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ছায়া সরকার।

ছায়া সরকার আরও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বাংলাদেশের ক্যাম্পে বসবাসরত রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসন নিশ্চিতে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর
কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত মুহূর্ত কমিউনিকেশনস লিমিটেড।
error: কপি/রাইট ক্লিক এর অনুমতি নাই !!!