1. admin@muhurto.tv : muhurtotv :
  2. smbabu.mcj@outlook.com : S M Babu : S M Babu
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন
সর্বশেষ মুহূর্তঃ
খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় রাজশাহীতে দোয়া মাহফিল রাসিক মেয়র ও আরএমপি কমিশনারের প্রতিমা বিসর্জন পরিদর্শন রাজশাহীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের মাঝে সাদাছড়ি বিতরণ দুর্গাপূজায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন আরএমপির সিআরটি সদস্যদের সাতদিনের মেন্টরশিপ কোর্স শুরু ইউএনও’র হস্তক্ষেপে শেষযাত্রায় অজ্ঞাত মরদেহের পরিচয় মিলেছে মাদ্রিদে বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভ্রাতৃ সমাবেশ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুদানের চেক বিতরণ করলেন বসিক মেয়র আসছে জুনের আগে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন: পানিসম্পদ উপমন্ত্রী দুর্গাপূজা উপলক্ষে আরএমপি কমিশনারের মতবিনিময় সভা

খুলনায় সুপেয় পানির সংকট মেটানোর দাবি

স্বপ্না সরদার, সংবাদ মুহূর্ত, খুলনা।
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ শনিবার, ২৯ মে, ২০২১
  • ৬৫ প্রদর্শিত সময়ঃ

সুপেয় পানির সমস্যা সমাধানের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে খুলনা সুপেয় পানি আন্দোলন কমিটি। শনিবার বেলা এগারটায় খুলনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আন্দোলন কমিটির সদস্য এ্যাডভোকেট কুদরত-ই-খুদা। তিনি বলেন, ৪৬ বর্গ কিলোমিটারের শহরের ভূমির চাহিদা মেটাতে সুপেয় পানির অন্যতম আধার পুকুরগুলো ভরাট করা হয়েছে।

এছাড়া, দখল দূষণের শিকার হয়েছে ময়ুর নদ। ফলে আবাসিকের পানির চাহিদাসহ পানির বহুমুখী চাহিদা বাড়ে। ২০১৬ সালে গ্রাহক ছিল ১৭ হাজার, বর্তমানে খুলনা মহানগরীতে গ্রাহক রয়েছে ৩৭ হাজার ৩০০ জন। গত চার বছরে গ্রাহক বেড়েছে প্রায় ১২ হাজার।

তিনি আরও বলেন, ২০১৩ সালে দুই হাজার ৫৫৮ কোটি ৩৩ লাখ ৭২ হাজার টাকায় ‘খুলনা পানি সরবরাহ প্রকল্প’ নামে মেগা প্রকল্প শুরু করে খুলনা ওয়াসা। অর্থায়ন করে জিওবি ফান্ড ৭৫০ কোটি ৪২ লাখ ৯৮ হাজার টাকা, ঋণ প্রদান করেছে এডিপি ৫২৩ কোটি ৭৭ লাখ ৯৬ হাজার টাকা ও জাইকা এক হাজার ২৮৪ কোটি টাকা।

প্রায় ৪৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত মধুমতি নদী থেকে পানি সংগ্রহের পর তা পরিশোধনের পর তা কেসিসির সরবরাহের কথা। নগরীতে ওয়াসার গ্রাহক এখন মাত্র ৩৭ হাজার ৩০০ জনের মতো। এরমধ্যে ওয়াসার পানি নিয়মিত ব্যবহার করে মাত্র ২০ হাজার গ্রাহক, যা নগরীর মোট হোল্ডিংয়ের মাত্র ২৫ শতাংশ।

সংবাদ সম্মেলনে ভবন নির্মাণসহ বিভিন্ন ব্যবসায়িক কাজে ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার বন্ধ করা, সাবমারসিবল পাম্প স্থাপনে বিধি নিষেধ আরোপ করা, ওয়াসার দু’টি পানির লাইন স্থাপনের পরিকল্পনা করা, পানির যৌক্তিক মূল্য নির্ধারণে ওয়াটার রেগুলেটরি কমিশন গঠন, ময়ুর নদীকে সংস্কার করে বিশেষ রিজারভার তৈরি ও সেখান থেকে নগরীর ২০ শতাংশ পানি সরবরাহ করাসহ একাধিক দাবি জানানো হয় জনপ্রতিনিধি ও সরকারের কাছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অধুনালুপ্ত খুলনা পৌরসভার চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট এনায়েত আলী, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের খুলনা বিভাগের সমন্বয়ক মাহফুজুর রহমান মুকুল, সাংবাদিক গৌরাঙ্গ নন্দী, প্রফেসর ডঃ ইয়াহিয়া, নাজমুল আজম ডেভিড, নারী নেত্রী সুতপা বেদঞ্জ, সিপিবির এস এ রশিদ প্রমুখ।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর
কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত মুহূর্ত কমিউনিকেশনস লিমিটেড।
error: কপি/রাইট ক্লিক এর অনুমতি নাই !!!