1. admin@muhurto.tv : muhurtotv :
  2. info@netpeon.org : Ali Siddiki : Ali Siddiki
  3. smbabu.mcj@outlook.com : S M Babu : S M Babu
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন

স্পেনে বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি পদক প্রাপ্তির ৪৮তম বার্ষিকী উদযাপন

কবির আল মাহমুদ, সংবাদ মুহূর্ত, স্পেন।
  • তথ্য হালনাগাদের সময়ঃ মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ১৯১ প্রদর্শিত সময়ঃ

যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পদক প্রাপ্তির ৪৮তম বার্ষিকী উদযাপন করেছে স্পেনের বাংলাদেশ দূতাবাস। এ উপলক্ষে রোববার স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূতাবাস মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় দূতাবাসের কর্মকর্তা কর্মচারিরা অংশ নেন।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে আলোচনা অনুষ্ঠানটি শুরু হয়। অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘জুলিও কুরি’ শান্তি পুরস্কার প্রাপ্তির ৪৮তম বার্ষিকী উপলক্ষে একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

দূতাবাসের প্রথম সচিব তাহসিনা আফরিন শারমিনের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য দেন রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ, কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ এবং প্রথম সচিব (শ্রম) মুতাসিমুল ইসলামসহ আরও অনেকে। এসময় রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদে বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অনন্য অবদানের কথা স্মরণ করে বলেন, ‘বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় ঐতিহাসিক ভূমিকা রেখে বিশ্বনন্দিত নেতায় পরিণত হয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। যে কারণে সারা বিশ্ব আজ তাকে গর্বের সঙ্গে স্মরণ করছে।’

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর নেতৃত্বে, দীর্ঘ নয় মাস মুক্তি সংগ্রামের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের অভ্যুদয় ছিল পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর শোষণ, বঞ্চনা ও বৈষম্যের বিরুদ্ধে বিজয়। ফ্যাসিবাদ বিরোধী, সাম্রাজ্যবাদ বিরোধী ও শোষণের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর সংগ্রামকে বিশ্ব মানবতার ইতিহাসে চির অম্লান করে রাখার জন্য বিশ্ব শান্তি পরিষদ ১৯৭৩ সালের ২৩ মে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জুলিও কুরি শান্তি পদক প্রদান করে। এ সম্মান পাবার পর বঙ্গবন্ধু তাঁর বক্তৃতায় বলেছিলেন, ‘এ সম্মান কোন ব্যক্তি বিশেষের জন্য নয়। এ সম্মান বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে আত্মদানকারী শহীদদের, স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর সেনানীদের। জুলিও কুরি শান্তি পদক সমগ্র বাঙালী জাতির।’

এদিন বঙ্গবন্ধুকে পদক পরিয়ে দেয়ার সময় বিশ্ব শান্তি পরিষদ এর মহাসচিব ঘোষণা করেন, ‘শেখ মুজিব শুধু বঙ্গবন্ধু নন, আজ থেকে তিনি বিশ্ববন্ধুও বটে।’

শান্তির দূত বঙ্গবন্ধু সকলের সাথে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে বৈরিতা নয় এবং সকল বিরোধের শান্তিপূর্ণ সমাধানকে তার পররাষ্ট্রনীতির মূলমন্ত্র হিসেবে গ্রহণ করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু আজ উপস্থিত না থাকলেও তার মহান আদর্শ, উদ্দেশ্য এবং তার নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠিত স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ আজ দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলছে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শান্তির স্বপক্ষে বাংলাদেশের বিভিন্ন পদক্ষেপ বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছ্। মিয়ানমার থেকে আসা ১১ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থীকে বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়েছে। প্রতিবছর জাতিসংঘে বাংলাদেশ প্রস্তাবিত শান্তির স্বপক্ষে রেজুলেয়শন ব্যাপকভাবে গৃহীত হয়। এছাড়া জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনীতে বাংলাদেশ দ্বিতীয় বৃহত্তম শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে।

আলোচনা শেষে জাতির পিতা ও তার পরিবারের সব শহীদ, মুক্তিযুদ্ধের সব শহীদদের আত্মার মাগফিরাত এবং দেশের শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

খবরটি আপনার স্যোশাল টাইমলাইনে শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই জাতীয় আরও অন্যান্য খবর
কপিরাইট © ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত মুহূর্ত কমিউনিকেশনস লিমিটেড।
error: কপি/রাইট ক্লিক এর অনুমতি নাই !!!